মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সেবার ধাপসমূহ

১। গবাদি পশু পাখির চিকিৎসা প্রদান-অসুস্থ্য পশুকে হাসপাতালে আনা এবং মালিকের নাম তালিকাভূক্তকরনঃ

-অসুস্থ্য পশুর পরীক্ষা ও রোগ র্নিণয়করন।

-সরবাহ সাপেক্ষে হাসপাতাল থেকে ঔষধ প্রদান এবং ব্যবস্থাপত্র প্রদানের মাধ্যমে পশুর চিকিৎসা প্রদান।

-রোগীর বাড়িতে যেয়ে চিকিৎসা প্রদান

-সরকার নির্ধারিত মূল্যে (অফিস সময়ের পর)।

 

২। গবাদি পশুর কৃত্রিম প্রজননঃ

-ডাকে আসা বকনা বা গাভীকে হাসপাতালে আনা এবং নাম তালিকাভূক্তকরন।

-সরকার নির্ধারিত ফি গ্রহন সাপেক্ষে (তরল সিমেন১৫/-হিমায়িত সিমেন৩০/

-)কৃত্রিম প্রজনন করা হয়।

-মালিকের বাড়ীতে যেয়ে কৃত্রিম প্রজনন করা(সরকারী নিয়ম অনুযায়ী)।

 

৩। গবাদি পশুর টিকাদান,হাঁস মুরগি ও গৃহপালিত পাখির টিকাদান, উন্নত জাতের ঘাসের চারা/বীজ বিতরন, পূণর্বাসন ও

   উপকরন সহায়তা প্রদানঃ

-গবাদিপশু ও হাঁস মুরগির টিকাবীজ সরবরাহ/বিক্রয়(মূল্য তালিকা অনুযায়ী)

-রোগাক্রান্ত এলাকা চিহ্নিতকরন ও প্রয়োজনীয় টিকা প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন(সরকারী মূল্য তালিকা অনুযায়ী)।

-ক্যাম্পেইন করে টিকাবীজ ও কিৃমির ঔষধ প্রদান(সরকারী নিয়ম অনুযায়ী)।

-প্রাকৃতিক দূর্যোগ চলাকালীন সময়ে স্থানীয় প্রশাসন,জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় বেসরকারী সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় গবাদি পশু ও হাঁস মুরগির চিকিৎসা, টিকা ও ত্রান প্রদান।

-উন্নত জাতের ঘাসের কাটিং/বীজ সরবরাহ(প্রাপ্তি সাপেক্ষে)।

 

৪। কৃষক/খামারী প্রশিক্ষণ, খামার রেজিষ্ট্রেশন,ক্ষুদ্র ঋণ বিতরন:

-প্রযুক্তি হস্তান্তরের নিমিত্তে গবাদি পশু ও হাঁস মুরগি পালন সংক্রান্ত প্রশিক্ষন প্রদান(বরাদ্দ সাপেক্ষে)।

-ব্যক্তি মালিকানাধীন খামারীরা উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার বরাবর আবেদন করবেন। আবেদনটি যাচাই পূর্বক জেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরে প্রেরন করা হয় এবং রেজিষ্ট্রেশন প্রদান করা হয়।

-লিখিত আবেদন উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার বরাবর(বরাদ্দ সাপেক্ষে)।

 

৫।ক্ষতিপূরণ প্রদানঃ

- লিখিত আবেদন উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার বরাবর।

 

৬।জনগণের অভিযোগ গ্রহন ও নিষ্পত্তিকরনঃ

–জেলা/উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসে লিখিত আবেদন করবেন।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter